বুকের তীক্ষ্ণ ব্যথা (Sharp chest pain)

শেয়ার করুন

বর্ণনা

পাঁজরের ভিতরে অস্বস্তিকর, তীব্র ও কনকনে ব্যথা অনুভূত হওয়া।

কারণ

বিভিন্ন কারণে এই লক্ষণ দেখা যেতে পারেঃ যেমন-  

অ্যাকিউট ব্রঙ্কাইটিস (Acute bronchitis) অ্যাঞ্জাইনা (Angina)
দুশ্চিন্তা/উদ্বেগ (Anxiety) অ্যাজমা (Asthma)
কার্ডিয়াক অ্যারেস্ট (Cardiac arrest) ক্রনিক অবস্ট্রাক্টিভ পালমোনারি ডিজিজ (Chronic obstructive pulmonary disease, COPD)
ক্রনিক রিউম্যাটিক ফিভার/ক্রনিক বাতজ্বর (Chronic rheumatic fever) হার্ট ব্লক (Heart block)
হার্ট এ্যাটাক (Heart attack) ডায়াবেটিক কিটোএ্যাসিডোসিস (Diabetic ketoacidosis)
হার্ট ফেইলিয়র (Heart failure) মাংসপেশীর খিঁচুনি বা টান (Muscle spasm)
উচ্চ রক্তচাপ (High blood pressure) পিত্তথলির পাথর (Gallstone)
বদহজম (Indigestion) কিডনি ফেইলিয়র (Kidney failure)
আতঙ্কগ্রস্ততা (Panic attack) ইশকেমিক হার্ট ডিজিজ (Ischemic heart disease)
গ্যাস্ট্রাইটিস (Gastritis) অন্ত্রের রোগ (Intestinal disease)
গ্যাস্ট্রোডিওডেনাল আলসার (Gastroduodenal ulcer) পেরিকার্ডাইটিস (Pericarditis)
গ্যাস্ট্রোইসোফেজিয়াল রিফ্লাক্স ডিজিজ/ বুকজ্বালা (Gastroesophageal reflux disease) ফুসফুসের অ্যাবসেস/পুঁজ (Abscess of the lung)
অ্যারিদমিয়া (Arrhythmia) ব্রুইস (Bruise)
সিলিয়াক ডিজিজ (Celiac disease) পালমোনারী হাইপারটেনশন (Pulmonary hypertension)
এন্ডোকার্ডাইটিস (Endocarditis) সিস্টেমিক লুপাস ইরাইথেম্যাটোসাস (এস-এল-ই) (Systemic lupus erythematosus (SLE))
পা্লমোনারী কঞ্জেশন (Pulmonary congestion) পালমোনারী ইওসিনোফিলিয়া (Pulmonary eosinophilia)
পালমোনারী ফাইব্রোসিস (Pulmonary fibrosis) কোলিডোকোলিথায়াসিস (Choledocholithiasis)
অ্যাড্রেনাল অ্যাডেনোমা (Adrenal adenoma) হার্ট কনটিউশন (Heart contusion)
র‍্যাবডোমায়োলাইসিস (Rhabdomyolysis) করোনারী অ্যাথেরোস্ক্লেরোসিস (Coronary atherosclerosis)
অর্থোস্ট্যাটিক হাইপোটেনশন (Orthostatic hypotension) ইনজুরি টু দি অ্যাবডোমেন (Injury to the abdomen)
প্লুরাল ইফিউশন (Pleural effusion) এমফাইসিমা (Emphysema)
এমপায়েমা (Empyema) পয়জনিং ডিউ টু গ্যাস (Poisoning due to gas)
ফ্লুইড ওভারলোড (Fluid overload) পালমোনারী এমবলিজম (Pulmonary embolism)
ফোলেট ডেফিসিয়েন্সি (Folate deficiency) থ্রম্বোসাটোপেনিয়া (Thrombocytopenia)
গ্যাস্ট্রোপ্যারেসিস (Gastroparesis) অ্যাবডোমিনাল অ্যাওর্টিক অ্যানিউরিজম (Abdominal aortic aneurysm)
লাং কনটিউশন (Lung contusion) ম্যাগনেসিয়াম ডেফিসিয়েন্সি (Magnesium deficiency)
ম্যালিগন্যান্ট হাইপারটেনশন (Malignant hypertension) অ্যাবসেস অফ দি ফ্যারিংস / গলবিলের ফোঁড়া (Abscess of the pharynx)
অ্যাকালাসিয়া (Achalasia) হায়াটাল হার্ণিয়া (Hiatal hernia)
সারকোয়ডোসিস (Sarcoidosis) ফাইব্রোমায়ালজিয়া (Fibromyalgia)
মাইট্রাল ভাল্ভ ডিজিজ (Mitral valve disease) মায়োকার্ডাইটিস (Myocarditis)
হাইপারকোলেস্টেরোলেমিয়া (Hypercholesterolemia) অ্যালকোহল ইনটক্সিকেশন (Alcohol intoxication)
সাইনাস ব্র্যাডিকার্ডিয়া (Sinus bradycardia) হাইপারকেলেমিয়া (Hyperkalemia)
হাইপোক্যালসেমিয়া (Hypocalcemia) হাইপোনেট্রেমিয়া (Hyponatremia)
স্ট্রিকচার অফ দি ইসোফ্যাগাস (Stricture of the esophagus) প্যারোক্সিসমাল সুপ্রাভেন্ট্রিকুলার ট্যাকিকার্ডিয়া (Paroxysmal supraventricular tachycardia)
অ্যাওর্টিক ভাল্ভ ডিজিজ (Aortic valve disease) অ্যাটেলেকটেসিস (Atelectasis)
ফ্র্যাকচার অফ দি রিব (Fracture of the rib) অ্যাট্রিয়াল ফিব্রিলেশন (Atrial fibrillation)
অ্যাকিউট স্ট্রেস রিঅ্যাকশন/ডিজঅর্ডার (Acute stress reaction/disorder) গ্রেনুলোমা ইঙ্গুইনালি (Granuloma inguinale)
হাইপারট্রোফিক অবস্ট্রাক্টিভ কার্ডিওমায়োপ্যাথি (এইচ-ও-সি-এম) (Hypertrophic obstructive cardiomyopathy (HOCM)) ইনজুরি টু ইন্টারনাল অরগান (Injury to internal organ)
ইনজুরি টু দি ট্রাঙ্ক (Injury to the trunk) নিউমোনিয়া (Pneumonia)

সংশ্লিষ্ট লক্ষণসমূহ

এই লক্ষণের সাথে অন্যান্য যেসকল লক্ষণ দেখা যেতে পারে সেগুলো হলোঃ

ঝুঁকিপূর্ণ বিষয়

নিম্নলিখিত বিষয়গুলি বুকে তীক্ষ্ণ ব্যথা হওয়ার ঝুঁকি বৃদ্ধি করে-  

  • বুকে আঘাত লাগা।
  • সি-ও-পি-ডি (COPD)।
  • ডিপ ভেনাস থ্রম্বসিস (Deep venous thrombosis)।
  • ডায়াবেটিস।
  •  কোলেস্টরলের মাত্রা বৃদ্ধি।
  • এমফাইসিমা (Emphysema)।
  • পরিবার বা বংশে হৃদরোগ থাকা।
  • অতিরিক্ত চর্বিযুক্ত খাদ্য গ্রহণ।
  • উচ্চ রক্তচাপ।
  • মেদবহুল শরীর।
  • পালমোনারি এমবোলিজম (Pulmonary embolism)।
  • উচ্চ মাত্রার অ্যাজমা।
  • ধূমপান।

 

যারা ঝুঁকির মধ্যে আছে

লিঙ্গ: পুরুষদের মধ্যে এই লক্ষণ দেখা দেওয়ার গড়পড়তা সম্ভাবনা থাকে। নারীদের মধ্যে এই লক্ষণ দেখা দেওয়ার সম্ভাবনা ১ গুণ কম।

জাতি:  শ্বেতাঙ্গ ও কৃষ্ণাঙ্গদের মধ্যে এই লক্ষণ দেখা দেওয়ার গড়পড়তা সম্ভাবনা থাকে। হিস্প্যানিক ও অন্যান্য জাতির মধ্যে এই লক্ষণ দেখা দেওয়ার সম্ভাবনা ১ গুণ কম।

সাধারণ জিজ্ঞাসা

উত্তর: বুকে সৃষ্ট যে কোনো ব্যথাকেই সাধারণভাবে বুকের ব্যথা বলা হয়। অ্যাঞ্জাইনা বলতে বুকের সেই ধরনের ব্যথাকে বোঝায় যা হৃৎপিণ্ডের সমস্যার সাথে সম্পর্কযুক্ত।

উত্তরঃ  হ্যাঁ, উচিৎ। বুকে ব্যথা কোনো গুরুতর কারণে হচ্ছে কীনা, সে ব্যাপারে নিশ্চিত না হওয়া অব্দি বিষয়টিকে গুরুত্বের সাথে দেখতে হবে।

উত্তর: ক্ষতিকর নয় এমন কোনো কারণেও হতে পারে, আবার কিছু ক্ষেত্রে প্রাণনাশক কোনো গুরুতর কারণেও বুকে ব্যথা হতে পারে।

হেলথ টিপস্‌

নিম্নলিখিত বিষয়গুলি অনুসরণ করে বুকের ব্যথা হওয়ার ঝুঁকি কমানো সম্ভব-

  • সুষম ও পুষ্টিকর খাদ্য গ্রহণ করুন। এছাড়া চর্বিযুক্ত খাবার সীমিত পরিমাণে গ্রহণ করা উচিৎ।
  •  ওজন নিয়ন্ত্রণ করুন।
  • অ্যালকোহল গ্রহণ করবেন না।
  • ধূমপান বা অন্যান্য তামাকজাতীয় দ্রব্য পরিহার করুন।