চেরি ফল এর বর্ণনা


শেয়ার করুন

চেরি ফল

উপকারিতা ও অপকারিতা

যার জন্য উপকারী কারণ
ত্বকের বলিরেখা

চেরি ফল অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট, ভিটামিন-সি এবং ফ্ল্যাভোনয়েডসে ভরপুর।এরা ফ্রি-র্যা ডিকেল কে কার্যকরভাবে প্রতিরোধ করতে পারে এবং এই সকল উপাদানগুলো বার্ধক্যজনিত সব ধরনের রোগ বা অক্সিডেন্টের প্রভাবজনিত সমস্যা যেমন- হার্টের দুর্বলতা, স্নায়ুতন্ত্রের রোগ, চুল পড়া, ত্বকের বলিরেখা, যৌনশক্তি কমে যাওয়া, অনির্দ্রা এবং অন্যান্য মানসিক সমস্যা দূর করতেও সাহায্য করে।

ক্যান্সার

ফ্ল্যাভোনয়েডস, ক্যারোটিনয়েড এবং ভিটামিন-এ এবং সি অত্যন্ত শক্তিশালী  অ্যান্টি-কার্সি্নোজেনিক উপাদান। এরা ক্যান্সার কোষের বৃদ্ধিকে দমন করতে পারে এবং সেই সাথে নতুন করে সৃষ্টি হওয়া কোষের বিরূদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তুলতে সক্ষম। ক্যান্সার হওয়ার জন্য এরাই প্রধানত দায়ী।

অ্যালঝেইমার ডিজিজ

স্মরনশক্তি বৃদ্ধি এবং তা ধরে রাখতে ফ্ল্যাভোনয়েডস এবং ক্যারোটিনয়েডস কার্যকরভাবে কাজ করে,এছাড়াও ফ্রি-র্যা ডিকেলের ক্ষতিকর প্রভাবের কারনে বয়স বৃদ্ধিজনিত যে সমস্যা গুলো হয় তা নিয়ন্ত্রনে থাকে। যে সকল ব্যক্তিদের ক্ষীণবুদ্ধি এবং স্মরণ-শক্তি কম তারা  চেরি ফল খেলে উপকার পেতে পারেন।চেরি ফলে থাকা এই অ্যান্টিঅক্সিডেণ্ট বয়স বৃদ্ধির সাথে সাথে স্নায়ুতন্ত্রে যে সমস্যা হয় তা প্রতিরোধ করে। 

হজম

চেরি ফলে থাকা খাদ্যআঁশ কোষ্ঠকাঠিন্য এবং হজমের বিভিন্ন রকম সমস্যা দূর করে।চেরি ফলের অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট পরিপাকতন্ত্র কে সুস্থ রাখে। ফ্ল্যাভোনয়েডস পাচক রস এবং পিত্ত কে উদ্দীপ্ত করে, চেরিতে উপস্থিত ভিটামিন পুষ্টি উপাদান গুলো শোষন করে।

হৃদরোগ

চেরির পুষ্টি উপাদান যেমন- ভিটামিন, অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট( ফ্ল্যাভোনয়েডস এবং ক্যারোটিনয়েডস)এবং ফসফরাস হৃদরোগ জনিত সমস্যা নিয়ন্ত্রনে রাখতে সাহায্য করে। এটি অক্সিডেন্ট দ্বারা সৃষ্ট প্রায় সব ধরনের ক্ষতি থেকে হৃদপিন্ড কে রক্ষা করে। এরা প্রধানত রক্তনালী কে শক্ত হওয়া থেকে প্রতিরোধ করে। এটি  কোলেস্টেরল মাত্রা নিয়ন্ত্রনে রেখে হার্ট অ্যাটাকের ঝুঁকি অনেকাংশে কমিয়ে আনে। 

ডায়াবেটিস মেলিটাস

চেরিতে উপস্থিত ফ্রুক্টোজ ডায়াবেটি্স রোগীদেরকে ক্ষতি ছাড়াই শক্তি প্রদান করে।

হৃৎপিন্ডের দূর্বলতা

চেরি ফল অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট, ভিটামিন-সি এবং ফ্ল্যাভোনয়েডসে ভরপুর।এরা ফ্রি-র‍্যাডিকেল কে কার্যকরভাবে প্রতিরোধ করতে পারে এবং এই সকল উপাদানগুলো বার্ধক্যজনিত সব ধরনের রোগ বা অক্সিডেন্টের প্রভাবজনিত সমস্যা যেমন- হার্টের দুর্বলতা, স্নায়ুতন্ত্রের রোগ, চুল পড়া, ত্বকের বলিরেখা, যৌনশক্তি কমে যাওয়া, অনির্দ্রা এবং অন্যান্য মানসিক সমস্যা দূর করতেও সাহায্য করে।

 

 

স্নায়ুতন্ত্রের রোগ

চেরি ফল অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট, ভিটামিন-সি এবং ফ্ল্যাভোনয়েডসে ভরপুর।এরা ফ্রি-র‍্যাডিকেল কে কার্যকরভাবে প্রতিরোধ করতে পারে এবং এই সকল উপাদানগুলো বার্ধক্যজনিত সব ধরনের রোগ বা অক্সিডেন্টের প্রভাবজনিত সমস্যা যেমন- হার্টের দুর্বলতা, স্নায়ুতন্ত্রের রোগ, চুল পড়া, ত্বকের বলিরেখা, যৌনশক্তি কমে যাওয়া, অনির্দ্রা এবং অন্যান্য মানসিক সমস্যা দূর করতেও সাহায্য করে।

 

 

দৃষ্টিশক্তির ক্ষতি

চেরি ফল অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট, ভিটামিন-সি এবং ফ্ল্যাভোনয়েডসে ভরপুর।এরা ফ্রি-র‍্যাডিকেল কে কার্যকরভাবে প্রতিরোধ করতে পারে এবং এই সকল উপাদানগুলো বার্ধক্যজনিত সব ধরনের রোগ বা অক্সিডেন্টের প্রভাবজনিত সমস্যা যেমন- হার্টের দুর্বলতা, স্নায়ুতন্ত্রের রোগ, চুল পড়া, ত্বকের বলিরেখা, যৌনশক্তি কমে যাওয়া, অনির্দ্রা এবং অন্যান্য মানসিক সমস্যা দূর করতেও সাহায্য করে।

 

 

ম্যাকুলার ডিজেনারেশন

চেরি ফল অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট, ভিটামিন-সি এবং ফ্ল্যাভোনয়েডসে ভরপুর।এরা ফ্রি-র‍্যাডিকেল কে কার্যকরভাবে প্রতিরোধ করতে পারে এবং এই সকল উপাদানগুলো বার্ধক্যজনিত সব ধরনের রোগ বা অক্সিডেন্টের প্রভাবজনিত সমস্যা যেমন- হার্টের দুর্বলতা, স্নায়ুতন্ত্রের রোগ, চুল পড়া, ত্বকের বলিরেখা, যৌনশক্তি কমে যাওয়া, অনির্দ্রা এবং অন্যান্য মানসিক সমস্যা দূর করতেও সাহায্য করে।

 

 

চুল পড়া

চেরি ফল অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট, ভিটামিন-সি এবং ফ্ল্যাভোনয়েডসে ভরপুর।এরা ফ্রি-র‍্যাডিকেল কে কার্যকরভাবে প্রতিরোধ করতে পারে এবং এই সকল উপাদানগুলো বার্ধক্যজনিত সব ধরনের রোগ বা অক্সিডেন্টের প্রভাবজনিত সমস্যা যেমন- হার্টের দুর্বলতা, স্নায়ুতন্ত্রের রোগ, চুল পড়া, ত্বকের বলিরেখা, যৌনশক্তি কমে যাওয়া, অনির্দ্রা এবং অন্যান্য মানসিক সমস্যা দূর করতেও সাহায্য করে।

 

 

কোষ্ঠকাঠিন্য

চেরি ফলে থাকা খাদ্যআঁশ কোষ্ঠকাঠিন্য এবং হজমের বিভিন্ন রকম সমস্যা দূর করে।চেরি ফলের অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট পরিপাকতন্ত্র কে সুস্থ রাখে। ফ্ল্যাভোনয়েডস পাচক রস এবং পিত্ত কে উদ্দীপ্ত করে, চেরিতে উপস্থিত ভিটামিন পুষ্টি উপাদান গুলো শোষন করে।

যার জন্য অপকারি কারণ
ডায়রিয়া

কিছু কিছু মানুষ ফলের ফ্রুক্টোজ নামক সুগার সহ্য করতে পারেনা এবং এই ধরণের প্রতিক্রিয়াকে ডায়েটারি ফ্রুক্টোজ ইনটলারেন্স(dietary fructose intolerance)বলে। এই ধরণের প্রতিক্রিয়া বা সমস্যার ফলে পেটে খিঁচুনি দিয়ে ব্যথা ওঠে এবং পাতলা পায়খানা হয়। অপরদিকে, যাদের ডায়েটারি ফ্রুক্টোজ ইনটলারেন্স(dietary fructose intolerance) না থাকে তারা যদি মাত্রাতিরিক্ত চেরি ফল খায় তাদেরও ডায়রিয়া হতে পারে। কারণ চেরি ফলে অধিক পরিমাণে সরবিটল (sorbitol) নামের জোলাপ জাতীয় পদার্থ থাকে যা পায়খানা নরম করে।

সারমর্ম

পুষ্টিতথ্য

  • পরিবেশন আকার: ১০০ গ্রাম
  • পরিবেষনার ধরন: ১৩ পিস

ক্যালরি: ৬৩ কিলোক্যালরি

  • সুগার: ১২.৮২ গ্রাম
  • শর্করা: ১৬.০১ গ্রাম
  • ফ্যাট: ০.২ গ্রাম
  • ভিটামিন সি: ৭ মিলিগ্রাম
  • ভিটামিন এ: ৬৪ I.U. (আন্তর্জাতিক একক)
  • প্রোটিন: ১.০৬ গ্রাম
  • পানি: ৮২.২৫ গ্রাম

খাদ্য পুষ্টি

  • ফ্রুক্টোজ: ৫.৩৭ গ্রাম
  • গ্যালাক্টোজ: ০.৫৯ গ্রাম
  • সুক্রোজ: ০.১৫ গ্রাম
  • মল্টোজ: ০.১২ গ্রাম
  • আঁশ: ২.১ গ্রাম
  • গ্লুকোজ ( ডেক্সট্রোজ): ৬.৫৯ গ্রাম
  • স্যাচুরেটেড ফ্যাটি এসিড: ০.০৩৮ গ্রাম
  • হেক্সাডেকানয়িক এসিড: ০.০২৭ গ্রাম
  • অক্টাডেকানয়িক এসিড: ০.০০৯ গ্রাম
  • টেট্রাডেকানয়িক এসিড: ০.০০১ গ্রাম
  • মোনো-আনস্যাচুরেটেড ফ্যাটি এসিড: ০.০৪৭ গ্রাম
  • হেক্সাডেসিনয়িক: ০.০০১ গ্রাম
  • অক্টাডেসিনয়িক এসিড: ০.০৪৭ গ্রাম
  • পলি-আনস্যাচুরেটেড ফ্যাটি এসিড: ০.০৫২ গ্রাম
  • অক্টাডেকাডিইনয়িক এসিড: ০.০২৭ গ্রাম
  • অক্টাডেকাট্রিইনয়িক এসিড: ০.০২৬ গ্রাম
  • ভিটামিন- বি-১ (থায়ামিন): ০.০২৭ মিলিগ্রাম
  • ভিটামিন- বি-২ (রিবোফ্ল্যাভিন): ০.০৩৩ মিলিগ্রাম
  • ভিটামিন- বি-৩ (নায়াসিন): ০.১৫৪ মিলিগ্রাম
  • ভিটামিন- বি-৫ (প্যান্টোথিনিক এসিড): ০.১৯৯ মিলিগ্রাম
  • ভিটামিন- বি-৬: ০.০৪৯ মিলিগ্রাম
  • ভিটামিন- ই: ০.০৭ মিলিগ্রাম
  • টোকোফেরলস: ০.১৫ মাইক্রোগ্রাম
  • ভিটামিন- কে: ২.১ মাইক্রোগ্রাম
  • কোলিন: ৬.১ মিলিগ্রাম
  • ফোলেট: ৪ মাইক্রোগ্রাম
  • ভিটামিন- এ,আর-এ-ই (RAE): ৩ মাইক্রোগ্রাম
  • লুটিন + জিয়েজ্যানথিন: ৮৫ মাইক্রোগ্রাম
  • বেটা-ক্যারোটিন: ৩৮ মাইক্রোগ্রাম
  • পটাসিয়াম (K): ২২২ মিলিগ্রাম
  • ক্যালসিয়াম (Ca): ১৩ মিলিগ্রাম
  • ফসফরাস (P): ২১ মিলিগ্রাম
  • ম্যাগনেসিয়াম (Mg): ১১ মিলিগ্রাম
  • লৌহ: ০.৩৬ মিলিগ্রাম
  • জিংক (Zn): ০.০৭ মিলিগ্রাম
  • তামা (Cu): ০.০৬ মিলিগ্রাম
  • ম্যাঙ্গানিজ (Mn): ০.০৭ মিলিগ্রাম
  • ফ্লোরাইড (F): ২ মিলিগ্রাম
  • মিথিয়োনিন: ০.০১ গ্রাম
  • আইসোলিউসিন: ০.০২ গ্রাম
  • লিউসিন: ০.০৩ গ্রাম
  • লাইসিন: ০.০৩২ গ্রাম
  • ফিনাইলএলানিন: ০.০২৪ গ্রাম
  • থ্রিয়োনিন: ০.০২২ গ্রাম
  • ট্রিপটোফেন: ০.০০৯ গ্রাম
  • ভেলিন: ০.০২৪ গ্রাম
  • হিস্টিডিন: ০.০১৫ গ্রাম
  • আরজিনিন: ০.০১৮ গ্রাম
  • গ্লাইসিন: ০.০২৩ গ্রাম
  • এলানিন: ০.০২৬ গ্রাম
  • সিরিন: ০.০৩ গ্রাম
  • সিস্টিন: ০.০১ গ্রাম
  • এসপারটিক এসিড: ০.৫৬৯ গ্রাম
  • গ্লুটামিক এসিড: ০.০৮৩ গ্রাম
  • টাইরোসিন: ০.০১৪ গ্রাম
  • প্রোলিন: ০.০৩৯ গ্রাম
  • অ্যাশ: ০.৪৮ গ্রাম