সাবঅ্যারাকনয়েড হেমরয়েজ (Subarachnoid hemorrhage)

শেয়ার করুন

বর্ণনা

মস্তিষ্ক ও মস্তিষ্কের আবরণ সৃষ্টিকারী টিস্যুর মধ্যবর্তী অংশকে সাবঅ্যারেকনয়েড স্পেস (subarachnoid space) বলে। এই অংশের মধ্যে রক্তক্ষরণ হলে তাকে সাবঅ্যারেকনয়েড হেমরয়েজ বলা হয়।

সাবঅ্যারেকনয়েড স্পেসের মধ্য দিয়ে সেরেব্রোস্পাইনাল ফ্লুইড প্রবাহিত হয় এবং এই অংশটি মস্তিষ্ককে গুরুতর আঘাত থেকে রক্ষা করে। সাবঅ্যারেকনয়েড স্পেসে রক্তক্ষরণ হলে আক্রান্ত ব্যক্তি অচেতন হয়ে যেতে পারে বা তার প্যারালাইসিস হতে পারে। কিছু ক্ষেত্রে সাবঅ্যারেকনয়েড হেমরয়েজের জন্য মৃত্যু হওয়ারও সম্ভাবনা রয়েছে।এই সমস্যাটি খুব দ্রুত দেখা দিতে পারে। তাই এক্ষেত্রে সুরক্ষা নিশ্চিত করতে আক্রান্ত ব্যক্তির দ্রুত চিকিৎসা নেওয়া প্রয়োজন। তবে খুব কম ব্যক্তি এই রোগে আক্রান্ত হয়ে থাকে।

কারণ

নিম্নলিখিত কারণগুলির জন্য সাবঅ্যারেকনয়েড হেমরয়েজ হতে পারে-

  • আর্টেরিওভেনাস ম্যালফরমেশন (arteriovenous malformation) বা শিরা-ধমনীর গাঠনিক ত্রুটি থেকে রক্তক্ষরণ
  • ব্লিডিং ডিজঅর্ডার ( Bleeding disorder)
  • সেলেব্রাল অ্যান্যুরিজম থেকে রক্তক্ষরণ (cerebral aneurysm)
  • মাথায় আঘাত
  • রক্ত পাতলাকারী ঔষধ গ্রহণ।
  • বয়স্ক ব্যক্তিরা পড়ে গিয়ে মাথায় আঘাত পেলে তাদের সাবঅ্যারেকনয়েড হেমরয়েজ হতে পারে। অল্পবয়স্করা সাধারণত যানবাহনের দুর্ঘটনার কারণে এই সমস্যায় আক্রান্ত হয়।

লক্ষণ

এই রোগে আক্রান্ত ব্যক্তিদের মধ্যে চিকিৎসকেরা নিম্নলিখিত লক্ষণগুলি চিহ্নিত করে থাকেন:

ঝুঁকিপূর্ণ বিষয়

নিম্নলিখিত বিষয়গুলি সাবঅ্যারেকনয়েড হেমরয়েজ হওয়ার ঝুঁকি বৃদ্ধি করে:

  • অন্যান্য রক্তনালীতে অ্যান্যুরিজম
  • ফাইব্রোমাসকুলার ডিসপ্ল্যাসিয়া (Fibromuscular dysplasia) এবং অন্যান্য কানেকটিভ টিস্যু ডিজঅর্ডার (connective tissue disorder)
  • উচ্চ রক্তচাপ
  • পূর্বে পলিসিস্টিক কিডনি ডিজিজে (polycystic kidney disease) আক্রান্ত হওয়া
  • ধূমপান
  • পরিবারে অ্যানুরিজমে আক্রান্ত ব্যক্তি থাকলেও এই রোগ হওয়ার ঝুঁকি বৃদ্ধি পায়।

যারা ঝুঁকির মধ্যে আছে

লিঙ্গঃ পুরুষ ও নারী উভয়ের মধ্যে এই রোগ নির্ণয় হওয়ার গড়পড়তা সম্ভাবনা থাকে।

জাতিঃ শ্বেতাঙ্গ ও হিস্প্যানিকদের মধ্যে এই রোগ নির্ণয় হওয়ার গড়পড়তা সম্ভাবনা থাকে। কৃষ্ণাঙ্গ ও অন্যান্য জাতির মানুষের মধ্যে এই রোগ নির্ণয় হওয়ার সম্ভাবনা ১ গুণ কম।  

সাধারণ জিজ্ঞাসা

উত্তরঃ সাবঅ্যারেকনয়েড হেমরয়েজে আক্রান্ত বেশিরভাগ মহিলা নিরাপদভাবে গর্ভবতী হতে পারে এবং সন্তান জন্মদান করতে পারে। এই সমস্যায় আক্রান্ত কোনো মহিলার গর্ভবতী হওয়ার সম্ভাবনা থাকলে এ ব্যাপারে তার চিকিৎসকের পরামর্শ নেওয়া উচিৎ।

উত্তরঃ হ্যাঁ, নিরাপদ। সার্জারি করা হলে চোয়ালে কয়েক সপ্তাহ ধরে ব্যথা থাকতে পারে। বিশেষত মুখ খোলা ও চিবানোর সময় ব্যথা অনুভূত হয়। তাই চোয়ালের ব্যথা কমার আগ অব্দি চিকিৎসা গ্রহণ করলে ব্যথা অনুভূত হতে পারে।

  

উত্তরঃ সাবঅ্যারেকনয়েড হেমরয়েজ হওয়ার পর ভ্রমণে ঝুঁকির কিছু নেই। তবে এই সমস্যা থেকে সেরে ওঠার দুই মাসের মধ্যে ভ্রমণ করতে যতোটা শারীরিক সুস্থতা বোধ করা প্রয়োজন ততোটা সুস্থতা সার্জারির পর স্বাভাবিকভাবে কোনো ব্যক্তির থাকে না। সার্জারির পর এই সময়ের মধ্যে ভ্রমণ করা হলে স্বাভাবিকের তুলনায় বেশি ক্লান্তিবোধ হতে পারে এবং এ কারণে সেরে উঠতে কিছুটা বেশি সময় লাগতে পারে। তবে সাবঅ্যারেকনয়েড হেমরয়েজের সাথে সম্পর্কযুক্ত কোনো সমস্যা এ জন্য সৃষ্টি হয় না।

 

হেলথ টিপস্‌

আর্টেরিওভেনাস ম্যালফরমেশন বা এ-ভি-এম (AVM) এর কারণে সৃষ্ট সাবঅ্যারেকনয়েড হেমরয়েজ প্রতিরোধ করা প্রায় অসম্ভব। কারণ হেমরয়েজ হওয়ার পূর্বে সাধারণত রক্তনালীর অস্বাভাবিকতার ফলে কোনো লক্ষণ দেখা দেয় না। তবে যেহেতু ধূমপান অ্যান্যুরিজমের ঝুঁকি বৃদ্ধি করে, তাই ধূমপান ত্যাগ করলে কিছু ক্ষেত্রে হেমরয়েজের কারণে সৃষ্ট স্ট্রোক রোধ করা যেতে পারে।

বিশেষজ্ঞ ডাক্তার

প্রফেসর ডা: আবুল খায়ের

নিউরো সার্জারী ( স্নায়ু) ( Neuro Surgery)

প্রফেসর ডাঃ ফিরোজ আহমেদ কোরাইশী

নিউরোলজি ( স্নায়ুতন্ত্র) ( Neurology)

প্রফেসর ডাঃ মোঃ জিল্লুর রহমান

নিউরোলজি ( স্নায়ুতন্ত্র) ( Neurology)

প্রফেসর ডা: কনক কান্তি বড়ুয়া

নিউরো সার্জারী ( স্নায়ু) ( Neuro Surgery)

প্রফেসর ডা: হাসান জাহিদুর রহমান

নিউরোলজি ( স্নায়ুতন্ত্র) ( Neurology)

ডাঃ মোঃ রেজাউল আমিন (টিটু)

নিউরো সার্জারী ( স্নায়ু) ( Neuro Surgery)

এমবিবিএস (ঢাকা), এমএস (নিউরোসার্জারী)

প্রফেসর ডা: ওয়াহেদুজ্জামান

নিউরো সার্জারী ( স্নায়ু) ( Neuro Surgery)