ওভারিয়ান টরশন (Ovarian torsion)

শেয়ার করুন

বর্ণনা

এই রোগের ঝুঁকিপূর্ণ বিষয় গুলো নিম্নে দেওয়া হলো।

  •  অ্যানাটমিকাল অ্যাবনর্মালিটি বা শারীরিক অস্বাভাবিকতাঃ
  •  ফ্যালোপিয়ান টিউবের আকার স্বাভাবিকের তুলনায় বড় হওয়া
  • ডিম্বাশয়ের আকার স্বাভাবিকের তুলনায় বড় হওয়া
  • ওভারিতে বড় আকারের সিস্ট
  • ওভারিতে টিউমার
  • গর্ভাবস্থা
  • গর্ভাবস্থার প্রথম তিন মাসে ওভারিয়ান টরশন হওয়ার ঝুকি বেশি থাকে
  • ওভুলেশনের (ডিম্বস্ফোটন) জন্য ঔষধ সেবন
  • পূর্বে পেলভিক সার্জারি করালে  

কারণ

৬০ ভাগ ওভারিয়ান টরশন ডান পাশের ওভারিতে (ডিম্বাশয়) হয়ে থাকে। বৃহৎ ওভারির চারপাশে ফ্যালোপিয়ান টিউব থাকে এবং এই ফ্যালোপিয়ান টিউব গুলোতে মোচকানো ভাব অনুভূত হওয়ার কারণে বৃহৎ ওভারিতে ওভারিয়ান টরশন দেখা দেয়। গর্ভাবস্থায় মহিলাদের ওভারির আকার বড় হয়ে যায়। এই সমস্যায় আক্রান্ত মহিলাদের মধ্যে ২০ ভাগ হচ্ছে গর্ভবতী মহিলা। ওভারিয়ান সিস্ট, ওভারিয়ান ক্যান্সার এবং ওভারিতে অন্যান্য নন- ক্যান্সারাস (ক্ষতিকর নয় এমন) পিন্ডের কারণেও ওভারিয়ান টরশন হতে পারে।

জন্মগত অস্বাভাবিকতা যেমনঃ শিশু বিকলাঙ্গ হলে বা শিশুর ফ্যালোপিয়ান টিউবের আকার স্বাভাবিকের তুলনায় বড় হলে ওভারিয়ান টরশন হওয়ার ঝুঁকি বেড়ে যায়।

পূর্বে পেলভিকের (শ্রোর্ণী) সার্জারি করার কারণেও এই রোগ হতে পারে।


লক্ষণ

এই রোগে আক্রান্ত ব্যক্তিদের মধ্যে চিকিৎসকেরা নিম্নলিখিত লক্ষণগুলি চিহ্নিত করে থাকেন:

যারা ঝুঁকির মধ্যে আছে

 লিঙ্গঃ পুরুষদের মধ্যে এই রোগ নির্ণয়ের সম্ভাবনা ৮০৮ গুণ কম। মহিলাদের মধ্যে এই রোগ নির্ণয়ের গড়পড়তা সম্ভাবনা রয়েছে।  

জাতিঃ শেতাঙ্গদের মধ্যে এই রোগ নির্ণয়ের সম্ভাবনা ১ গুণ কম। অন্যদিকে কৃষ্ণাঙ্গ, হিসপানিক এবং অন্যান্য জাতির মধ্যে এই রোগ নির্ণয়ের গড়পড়তা সম্ভাবনা রয়েছে।   


সাধারণ জিজ্ঞাসা


উত্তরঃ ওভারিয়ান টরশনে আক্রান্ত অধিকাংশ রোগীর তলপেটে ব্যথা হওয়ার কারণে কথা বলতে, হটাচলা করতে, শ্বাস-প্রশ্বাসে নিতে সমস্যা দেখা দেয়। র‍্যাপচার্ড সিস্টে আক্রান্ত ব্যক্তি পেটে প্রচন্ড ব্যথা অনুভব করে এবং এই ব্যথা কয়েক ঘন্টা পর্যন্ত স্থায়ী হতে পারে। ওভারিয়ান টরশনে আক্রান্ত রোগীকে জরুরী ভিত্তিতে সার্জারি করতে হয়। র‍্যাপচার্ড সিস্টে আক্রান্ত রোগীকে জরুরী ভিত্তিতে সার্জারি করার প্রয়োজন হয় না।                                 

উত্তরঃ শুধুমাত্র একটি ওভারিতে ওভারিয়ান টরশন দেখা দেয়। অন্য ওভারিটি কার্যকর থাকে। এজন্য আপনি গর্ভধারন করতে পারবেন। উভয় ওভারি আক্রান্ত হলে আপনার মাসিক বন্ধ হয়ে যাবে।                                 

হেলথ টিপস্‌

ওভারিয়ান টরশন প্রতিরোধের জন্য এখনো কোনো পদ্ধতি আবিষ্কৃত হয়নি।               

বিশেষজ্ঞ ডাক্তার

অধ্যাপক ডাঃ সারিয়া তাসনীম

গাইনি ও অবসটেট্রিক্স ( Obstetrics & Gynaecology)

এমবিবিএস, এফসিপিএস(গাইনী এন্ড অব্‌স), এমএসএমএড(ইংল্যান্ড), ডিআইপি সিইপিআইডি(লন্ডন)

প্রফেসর ডাঃ সায়েবা আক্তার

গাইনি ও অবসটেট্রিক্স ( Obstetrics & Gynaecology)

প্রফেসর ডাঃ এস.এফ. নার্গিস

গাইনি ও অবসটেট্রিক্স ( Obstetrics & Gynaecology)

প্রফেসর ডা: জেসমিন আরা বেগম

গাইনি ও অবসটেট্রিক্স ( Obstetrics & Gynaecology)

প্রফেসর ডাঃ শাহেরীন এফ. সিদ্দিকী

গাইনি ও অবসটেট্রিক্স ( Obstetrics & Gynaecology)

প্রফেসর ডা: মালিহা রশিদ

গাইনি ও অবসটেট্রিক্স ( Obstetrics & Gynaecology)

প্রফেসর ডাঃ সামিনা চৌধুরী

গাইনি ও অবসটেট্রিক্স ( Obstetrics & Gynaecology)

ডাঃ শারমীনা সীদ্দিক

গাইনি ও অবসটেট্রিক্স ( Obstetrics & Gynaecology)