পাইলস (Hemorrhoids)

শেয়ার করুন

বর্ণনা

পাইলস হলো পায়ুপথে এবং মলদ্বারের নিচের দিকে অবস্থিত স্ফীত এবং প্রদাহযুক্ত শিরা। এটি পায়ুপথের ভিতরে বা এর আশেপাশের ত্বকের নিচে হয়। মলত্যাগের সময় অতিরিক্ত চাপ প্রয়োগের জন্য এই সমস্যা দেখা দেয়। এছাড়াও গর্ভাবস্থা, বয়স বৃদ্ধি, ক্রনিক কোষ্ঠকাঠিন্য বা ডায়রিয়ার কারণেও এই সমস্ত শিরার উপর চাপ বেড়ে গেলে পাইলসের সমস্যা দেখা দেয়।

সাধারণত বয়স ৫০ হওয়ার পূর্বেই এই সমস্যা দেখা যায়। মলত্যাগের সময় রক্তপাত হওয়া এই রোগের একটি সাধারণ লক্ষণ।

মলদ্বার থেকে রক্তক্ষরণ হলে চিকিৎসকের শরণাপন্ন হতে হবে। কোনো মারাত্মক শারীরিক সমস্যা যেমন কোলোরেক্টাল ক্যান্সার বা অ্যানাল ক্যান্সার এর কারণে রক্তপাত হচ্ছে কিনা, তা নিশ্চিত হতে হবে। এর চিকিৎসার মধ্যে রয়েছে ঐ স্থানে গরম পানি দিয়ে ধৌত করার পর ঔষধ বা ক্রিম লাগানো এবং পাইলসের আকার বড় হলে অপারেশন করাতে হবে।

কারণ

নিম্নলিখিত কারণগুলোর জন্য পাইলসের সমস্যা দেখা দিতে পারে:

  • মলত্যাগের সময় মলদ্বার বা পায়ুপথে অতিরিক্ত চাপ প্রয়োগ করা।
  • মলত্যাগের সময় বেশি সময় ধরে বসে থাকা।
  • ক্রনিক ডায়রিয়া অথবা কোষ্ঠকাঠিন্যের সমস্যা দেখা দেও্য়া।
  • অতিরিক্ত স্থূলতা।
  • গর্ভাবস্থা।

এছাড়াও খাবারে এলার্জি ও লিভারের সমস্যার কারণেও মলদ্বারের শিরায় চাপ পড়তে পারে এবং পাইলস হতে পারে। 

লক্ষণ

এই রোগে আক্রান্ত ব্যক্তিদের মধ্যে চিকিৎসকেরা নিম্নলিখিত লক্ষণগুলি চিহ্নিত করে থাকেন

চিকিৎসা

 চিকিৎসকেরা এই রোগে আক্রান্ত ব্যক্তিদের নিম্নলিখিত ঔষধগুলি গ্রহণ করার পরামর্শ দিয়ে থাকেন:  

ispaghula husk lactulose
lidocaine methyl cellulose
docusate

চিকিৎসকেরা এই রোগে আক্রান্ত ব্যক্তিদের নিম্নলিখিত টেস্টগুলি করার পরামর্শ দিয়ে থাকেন:  

সি-বি-সি (কমপ্লিট ব্লাড কাউন্ট) (CBC, Complete Blood Count)
এইচ-বি% (হিমোগ্লোবিন) (HB% (Haemoglobin))
পি-টি (প্রোথ্রম্বিন টাইম) (PT (Prothrombin time))
হেমোরয়েড প্রসিডিউরস (Hemorrhoid procedures)
প্রোক্টস্কপি এন্ড অ্যানোরেক্টাল বায়োপসি (Proctoscopy and anorectal biopsy)
সিগময়ডোস্কপি অর কোলনস্কপি (Sigmoidoscopy or colonoscopy)
অ্যানো-রেক্টাল এক্সামিনেশন (Ano-rectal examination)
এনোসকপি (Anoscopy)

ঝুঁকিপূর্ণ বিষয়

যে যে বিষয়ের কারণে পাইলস হওয়ার সম্ভাবনা বেড়ে যায়:

  • গর্ভাবস্থায় প্রোজেস্টেরন হরমোনের পরিমাণ বৃদ্ধি পায়। এর ফলে মলদ্বারের শিরার প্রাচীর দুর্বল হয়ে গিয়ে পাইলস হওয়ার সম্ভাবনা বাড়িয়ে দেয়।
  • অতিরিক্ত ওজনের কারণে মলদ্বার ও পায়ুপথে চাপ পড়ে এবং পাইলস হওয়ার ঝুঁকি বৃদ্ধি পায়।
  • বংশগত কারণে পাইলস হতে পারে।
  • আঁশযুক্ত খাবার কম খেলে বা মশলাযুক্ত খাবার বেশি খেলে পাইলস হওয়ার ঝুঁকি বেড়ে যায়।
  • অনেকক্ষণ যাবৎ বসে থাকলে বা কোষ্ঠকাঠিন্য থাকলে পাইলস হতে পারে।

যারা ঝুঁকির মধ্যে আছে

লিঙ্গঃ পুরুষদের মধ্যে এই রোগ নির্ণয়ের গড়পড়তা সম্ভাবনা রয়েছে। মহিলাদের মধ্যে এই রোগ নির্ণয়ের সম্ভাবনা ১ গুণ কম।

জাতিঃ শ্বেতাঙ্গ, কৃষ্ণাঙ্গ, হিস্প্যানিক ও অন্যান্য জাতিদের মধ্যে এই রোগ নির্ণয়ের গড়পড়তা সম্ভাবনা রয়েছে।

সাধারণ জিজ্ঞাসা

উত্তরঃ যখন হেমোরয়ডাল টিস্যু জমাট বেঁধে ফুলে যায় এবং প্রদাহ বা ব্যথা সৃষ্টি করে তখন এটি দেখা যায়। যে সব পাইলস মলদ্বারের বাহিরে হয় সে সব দেখা যায়। মলদ্বারের ভিতরে পাইলস হলে তা দেখা যায় না।

উত্তরঃ রাবার ব্যান্ড লাইগেশন (Rubber band ligation) - এর মাধ্যমে ইন্টারনাল বা অভ্যন্তরীণ পাইলসের চিকিৎসা করা হয় এবং এটি ৭৫% শতাংশ রোগীর জন্য কার্যকর পদ্ধতি। এ পদ্ধতিতে পাইলস একটি রাবার ব্যান্ড দিয়ে বেঁধে দেওয়া হয় যাতে করে সেখানে রক্ত সঞ্চালিত না হয়। এর কারণে পাইলসের কোষগুলো নষ্ট হয়ে যায় এবং কিছুদিন পর পাইলসটি খসে পড়ে।

উত্তরঃ অপারেশন ছাড়া পাইলসের চিকিৎসা করানো হলে তা পুনরায় হওয়ার সম্ভাবনা ৫০%। অপারেশনের মাধ্যমে এই রোগের চিকিৎসা করানো হলে তা পুনরায় হওয়ার সম্ভাবনা ৫%।

হেলথ টিপস্‌

নিম্নলিখিতভাবে নিজের খেয়াল নিজে রাখার মাধ্যমে পাইলসের ঝুঁকি কমানো সম্ভবঃ

  • দইয়ের সাথে এক টেবিল চামচ মিনারেল অয়েল বা খনিজ তেল মিশিয়ে সকালে বা দুপুরে খেতে হবে। তাহলে কোষ্ঠকাঠিন্য হওয়ার সম্ভাবনা কমে যায়। তবে এই পদ্ধতি বেশিদিন ধরে অবলম্বন করা যাবে না।
  • নিয়মিতভাবে ইসুপগুলের ভূষি খেতে হবে। এক্ষেত্রে ভূষি পানিতে গুলিয়ে সাথে সাথে গ্রহণ করতে হবে।
  • মলত্যাগের সময় বেশি চাপ প্রয়োগ করা যাবে না।
  • মলের বেগ চেপে রাখা যাবে না ।
  • পাইলসের জন্য কিছু ক্রিম বা মলম ব্যবহার করা যেতে পারে। এতে পাইলস ভাল না হলে চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে হবে।

বিশেষজ্ঞ ডাক্তার

প্রফেসর ডা: একেএম ফজলুল হক

কোলোরেক্টাল সার্জারী ( Colorectal Surgery)

প্রফেসর ডা: এস.এম.এ ইরফান

কোলোরেক্টাল সার্জারী ( Colorectal Surgery)

প্রফেসর ডাঃ এস.এম.এ. এরফান

কোলোরেক্টাল সার্জারী ( Colorectal Surgery)