গ্রেভস ডিজিজ (Graves disease)

শেয়ার করুন

বর্ণনা

হাইপারথাইরয়ডিজম হল থাইরয়েড গ্রন্থির একটি সমস্যা, যার কারণে থাইরয়েড হরমোন অতিরিক্ত পরিমাণে নিঃসৃত হয়ে থাকে। যদিও বিভিন্ন সমস্যার কারণে হাইপারথাইরয়ডিজম হয়ে থাকে, তবে এর একটি প্রধান কারণ হল গ্র্যাভস ডিজিজ, এক ধরনের ইমিউন সিস্টেম ডিজঅর্ডার।

দেহের বিভিন্ন কার্যকলাপের উপর থাইরয়েড হরমোন বিরুপ প্রভাব ফেলে। এই রোগের লক্ষণ ও উপসর্গগুলো দেহের শারীরিক অবস্থার অবনতি করে। এই রোগ যে কারো হতে পারে, তবে যাদের বয়স ৪০ এর নিচে তাদের মধ্যে এই রোগ হওয়ার ঝুঁকি বেশি।

এর চিকিৎসার প্রাথমিক লক্ষ্য হল থাইরয়েড হরমোনের অস্বাভাবিক নিঃসরণ ও লক্ষণসমূহের তীব্রতা নিয়ন্ত্রণ করা।


কারণ

ইমিউন সিস্টেম থাইরয়েড গ্রন্থিকে আক্রমণ করলে গ্র্যাভস ডিজিজ হয়ে থাকে। সাধারণত ইমিউন সিস্টেম ইনফেকশন ও ক্যান্সার প্রতিরোধ করার জন্য অ্যান্টিবডি তৈরী করে থাকে। কিন্তু গ্র্যাভস ডিজিজ হলে লিম্ফোসাইট থাইরয়েড কোষের উপরিভাগের প্রোটিন প্রতিরোধে অ্যান্টিবডি উৎপন্ন করে, যার কারণে থাইরয়েড গ্রন্থি আকারে বড় হয়ে যায় এবং অতিরিক্ত হরমোন নিঃসৃত করে। 

লক্ষণ

এই রোগে আক্রান্ত ব্যক্তিদের মধ্যে চিকিৎসকেরা নিম্নলিখিত লক্ষণগুলি চিহ্নিত করে থাকেন:

ঝুঁকিপূর্ণ বিষয়

যেসব বিষয়ের কারণে এই রোগ নির্ণয়ের ঝুঁকি বেড়ে যায়ঃ

  • পরিবারের কোন সদস্য-বাবা, মায়ের মধ্যে এই রোগ থাকলে অন্য কোন সদস্য, সন্তানদের মধ্যে এই রোগ নির্ণয়ের ঝুঁকি বেড়ে যায়।
  • মহিলাদের এই রোগ হওয়ার সম্ভাবনা বেশি।
  • যাদের বয়স ৪০ এর নিচে সাধারণত তাদের মধ্যে এই রোগ বেশি দেখা যায়।
  • টাইপ-১ ডায়াবেটিস, রিউম্যাটয়েড আর্থ্রাইটিস-এ আক্রান্ত ব্যক্তিদের মধ্যে এই রোগ হওয়ার ঝুঁকি বেশি থাকে।
  • মানসিক বা শারীরিক চাপের কারণেও এই রোগ হতে পারে।
  • ধূমপানের কারণেও এই রোগ হওয়ার ঝুঁকি বেড়ে যায়।
  • জিনগত কারণে যেসব মহিলাদের এই রোগ হওয়ার সম্ভাবনা থাকে, গর্ভাবস্থায় তাদের মধ্যে এই রোগ হওয়ার ঝুঁকি বেড়ে যায়।

যারা ঝুঁকির মধ্যে আছে

লিঙ্গঃ পুরুষদের মধ্যে এই রোগ নির্ণয়ের সম্ভাবনা ২ গুণ কম। মহিলাদের মধ্যে এই রোগ নির্ণয়ের গড়পড়তা সম্ভাবনা রয়েছে।

জাতিঃ শ্বেতাঙ্গদের মধ্যে এই রোগ নির্ণয়ের সম্ভাবনা ১ গুণ কম। কৃষ্ণাঙ্গ, হিস্পানিক ও অন্যান্য জাতিদের মধ্যে এই রোগ নির্ণয়ের গড়পড়তা সম্ভাবনা রয়েছে।  


সাধারণ জিজ্ঞাসা


উত্তরঃ সাধারণত গ্র্যাভস ডিজিজে আক্রান্ত মহিলারা গর্ভধারণ করতে পারে। তবে এই রোগের কারণে হরমোন মাত্রাতিরিক্ত পরিমাণে নিঃসৃত হলে গর্ভধারণের ক্ষেত্রে কিছুটা সমস্যা হতে পারে। গর্ভাবস্থা এই রোগ ভাল হওয়ার ক্ষেত্রে ভূমিকা পালন করে। এই রোগে আক্রান্ত অনেকের ক্ষেত্রেই গর্ভাবস্থায় কোন জটিলতা দেখা যায় না, তবে এসময় নিয়মিত চিকিৎসকের শরণাপন্ন হতে হবে।   

উত্তরঃ এই রোগের কারণে চোখে জ্বালাপোড়া, চোখ ও এর আশেপাশের টিস্যু ফুলে যায়। ৯৯ শতাংশ মানুষের ক্ষেত্রে এটি মারাত্নক কোন সমস্যা সৃষ্টি করে না। এই ক্ষেত্রে প্রাথমিক অবস্থায় যে লক্ষণগুলো দেখা যায় সেগুলো হলঃ

  • মণির পিছনের দিকের টিস্যুতে জ্বালাপোড়া হয় এবং ফুলে যায়।
  • চোখে কম বা ঝাপসা দেখা যায়।
  • চোখ লাল হয়ে যায়।
  • ডাবল ভিশন বা একটি বস্তু দুইটি দেখতে পাওয়া যায়। 

হেলথ টিপস্‌

গ্র্যাভস ডিজিজে আক্রান্ত ব্যক্তিদের মানসিক ও শারীরিক অবস্থার প্রতি বিশেষ খেয়াল রাখা প্রয়োজন। এই অবস্থায় কিছু পন্থা অবলম্বন করতে হবে।

চিকিৎসা চলাকালীন পরিমিত সুষম খাবার গ্রহণ ও নিয়মিত অনুশীলন করার মাধ্যমে অবস্থার কিছুটা উন্নতি সম্ভব। যেহেতু থাইরয়েড মেটাবলিজম বা বিপাকক্রিয়া নিয়ন্ত্রণ করে, হাইপারথাইরয়ডিজমের চিকিৎসা চলাকালীন ব্যক্তির ওজন বেড়ে যেতে পারে। এছাড়াও গ্র্যাভস ডিজিজের কারণে ব্যক্তির হাড় ভেঙ্গে যেতে পারে, এ অবস্থায় ভারোত্তোলন অনুশীলন করা যেতে পারে। গান শোনা, গরম পানি দিয়ে গোসল করা, হাঁটাহাঁটি করার মাধ্যমে মেজাজ ভাল রাখতে হবে এবং মানসিক চাপ কমাতে হবে।


বিশেষজ্ঞ ডাক্তার

প্রফেসর ডাঃমোঃ হাফিজুর রহমান

এন্ডোক্রাইনোলজি এন্ড মেটাবলিজম ( হরমোন) ( Endocrinology & Metabolism)

ডাঃ শাহাজাদা সেলিম

এন্ডোক্রাইনোলজি এন্ড মেটাবলিজম ( হরমোন) ( Endocrinology & Metabolism)

প্রফেসর ডা: আনিসুল হক

মেডিসিন ( Medicine)

MBBS,FCPS,FRCP(Edin),PHD(Gent)

ডাঃএস জি মোগনী মওলা

মেডিসিন ( Medicine)

MBBS, FCPS(Medicine), FACP(America)

ডা: এম.এ হাছানাত

এন্ডোক্রাইনোলজি এন্ড মেটাবলিজম ( হরমোন) ( Endocrinology & Metabolism)

প্রফেসর ডা: খাজা নাজিম উদ্দীন

মেডিসিন ( Medicine)

MBBS(Dhaka),FCPS(Med), FRCP(Glasgo), FCPS(USA)