ক্রনিক প্যানক্রিয়াটাইটিস (Chronic pancreatitis)

শেয়ার করুন

বর্ণনা

প্যানক্রিয়াটাইটিস হল অগ্ন্যাশয়ের (প্যানক্রিয়াস) প্রদাহ। দীর্ঘদিন ধরে অগ্ন্যাশয়ের প্রদাহকে ক্রনিক প্যানক্রিয়াটাইটিস বলে। অগ্ন্যাশয় শরীরে বিশেষ ধরনের এনজাইম ও হরমোন উৎপন্ন করে। এই এনজাইম খাদ্য হজমে ও হরমোন শরীরে শর্করা বিপাকে সাহায্য করে থাকে। প্যানক্রিয়াটাইটিস দুই প্রকারে দেখা দিতে পারে - অ্যাকিউট প্যানক্রিয়াটাইটিস (হঠাৎ আক্রান্ত হওয়া) এবং ক্রনিক প্যানক্রিয়াটাইটিস (অনেক বছর ধরে চলতে থাকলে)। সাধারণ প্যানক্রিয়াটাইটিস অনেক ক্ষেত্রে চিকিৎসা ছাড়াই দূরীভূত হয়। তবে তীব্র আকার ধারণ করলে প্যানক্রিয়াটাইটিস নানা ধরনের জীবননাশী জটিলতা সৃষ্টি করতে পারে।

কারণ

সাধারণত নিম্নলিখিত কারণে প্যানক্রিয়াটাইটিস হয়ে থাকে:

  • মাদকাসক্তি।
  • গলস্টোনস (পিত্তথলির পাথর)।
  • পেটে অস্ত্রোপচার ।
  • কিছু ঔষধের পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া ।
  • ধূমপান ।
  • সিসটিক ফিবরোসিস ।
  • বংশে প্যানক্রিয়াটাইটিসের উপস্থিতি ।
  • রক্তে ক্যালসিয়ামের উচ্চমাত্রা (হাইপারক্যালেমিয়া) ।
  • রক্তে ট্রাইগ্লিসারইডের উচ্চমাত্রা ।
  • ইনফেকশন ।
  • পেটে আঘাত লাগা ।
  • প্যানক্রিয়াটিক ক্যান্সার ।

লক্ষণ

এই রোগে আক্রান্ত ব্যক্তিদের মধ্যে চিকিৎসকেরা নিম্নলিখিত লক্ষণগুলি চিহ্নিত করে থাকেন:

চিকিৎসা

 চিকিৎসকেরা এই রোগে আক্রান্ত ব্যক্তিদের নিম্নলিখিত ঔষধগুলি গ্রহণ করার পরামর্শ দিয়ে থাকেন: 

celecoxib clomipramine hydrochloride
diclofenac sodium doxepin hydrochloride
ibuprofen ketorolac
naproxen nortriptyline
octreotide acetate paracetamol
tramadol hydrochloride

চিকিৎসকেরা এই রোগে আক্রান্ত ব্যক্তিদের নিম্নলিখিত টেস্টগুলি করার পরামর্শ দিয়ে থাকেন: 

এন্ডোস্কপিক রেট্রোগ্রেড কোলানজিও-প্যানক্রিয়াটোগ্রাফি (ই-আর-সি-পি) (Endoscopic retrograde cholangio-pancreatography (ERCP))
এন্ডোস্কপি ওফ আপার জি-আই (Endoscopy of Upper GI)
ইউ-এস-জি ইউ/এ (USG U/A)
প্লেইন এক্স-রে (Plain x-ray)
প্যানক্রিয়েটিক ফাংশন টেষ্ট (Pancreatic Function Tests)
সিরাম এমাইলেজ (Serum amylase)
সিরাম লাইপেজ (Serum lipase)

যারা ঝুঁকির মধ্যে আছে

লিঙ্গঃ পুরুষদের মধ্যে এই রোগ নির্ণয় হওয়ার গড়পড়তা সম্ভাবনা থাকে। নারীদের মধ্যে এই রোগ নির্ণয় হওয়ার সম্ভাবনা ১ গুণ কম।

জাতঃ শ্বেতাঙ্গদের মধ্যে এই রোগ নির্ণয় হওয়ার সম্ভাবনা ১ গুণ কম। হিস্প্যানিকদের মধ্যে এই রোগ নির্ণয় হওয়ার সম্ভাবনা ২ গুণ কম। কৃষ্ণাঙ্গ ও অন্যান্য জাতির মানুষের মধ্যে এই রোগ নির্ণয় হওয়ার গড়পরতা সম্ভাবনা থাকে। 

সাধারণ জিজ্ঞাসা

উত্তরঃ ক্রনিক প্যানক্রিয়াটাইটিসে আক্রান্ত ব্যক্তির CT ও MRI স্ক্যানের ফলাফল অনেক সময় স্বাভাবিক মনে হয়। এমনকি রক্ত পরীক্ষার ফলাফলও অনেক ক্ষেত্রে স্বাভাবিক আসতে পারে। এই ধরনের রোগীর ক্ষেত্রে সিকরেটিন প্যানক্রিয়াটিক ফাংশন টেস্টের মাধ্যমে প্যানক্রিয়াসের ক্রিয়াশীলতা বিশ্লেষণ করে দেখা হয়।

উত্তরঃ প্যানক্রিয়াস অপসারণ করা হলেও ক্রনিক প্যানক্রিয়াটাইটিসজনিত ব্যথা থাকার সম্ভাবনা ৫০ শতাংশ। প্যানক্রিয়াস অপসারণ করা হলেও মস্তিষ্কে প্যানক্রিয়াসে ব্যথা হওয়ার অনুভূতি সঞ্চারিত হতে পারে (ফ্যানটম পেইন)।

উত্তরঃ গবেষকরা প্যানক্রিয়াটাইটিস নিরাময়ের উপায় বের করার জন্য প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। প্যানক্রিয়াটাইটিসে আক্রান্ত অনেক ব্যক্তির ব্যথা অনেক সময় অজানা কারণেই কমে যায়। আবার অনেক রোগীর ক্ষেত্রে এই সমস্যা নিরাময়ের সুনির্দিষ্ট কোনো উপায় পাওয়া যায় না। গবেষণায় দেখা গেছে যে, জিনের যে সব পরিবর্তন ও বৃদ্ধির কারণে সিসটিক ফাইব্রোসিস হয়ে থাকে সেগুলির জন্য অনেকে প্যানক্রিয়াটাইটিসে আক্রান্ত হয়। এই আবিষ্কার প্যানক্রিয়াটাইটিস নিরাময়ের ক্ষেত্রে বিশেষ ভূমিকা রাখবে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

হেলথ টিপস্‌

ক্রনিক প্যানক্রিয়াটাইটিস প্রতিরোধের জন্য নিম্নে লিখিত বিষয়গুলি অনুসরণ করুন-

  • অ্যালকোহল পান বন্ধ করা: যদি আপনি নিজের উদ্যোগে অ্যালকোহল পান বন্ধ করতে ব্যর্থ হন, তাহলে চিকিৎসকের পরামর্শ নিন।
  • ধূমপান ত্যাগ: ধূমপান অতিসত্ত্বর বন্ধ করুন। ধূমপান বন্ধ করতে প্রয়োজনে ঔষধ ও চিকিৎসকের পরামর্শ গ্রহণ করুন।
  • কম চর্বিযুক্ত খাদ্য গ্রহণ করুন: অতিরিক্ত চর্বিযুক্ত খাদ্য গ্রহণ করবেন না। বেশি পরিমাণে ফল ও শাকসবজি খাদ্য তালিকায় রাখুন।
  • বেশি পরিমাণে পানীয় পান করুন: প্যানক্রিয়াটাইটিসের কারণে শরীরে পানিশূন্যতা দেখা দিতে পারে, তাই সারা দিনে অধিক পরিমাণে পানীয় পান করুন। প্রয়োজনে সব সময় পানির বোতল বা গ্লাস সাথে রাখুন।

বিশেষজ্ঞ ডাক্তার

প্রফেসর ডা: এ.এস.এম.এ রাইহান

গ্যাস্ট্রোএন্টেরোলজি ( খাদ্যনালী, পরিপাকতন্ত্র) ( Gastroenterology)

ডা: মামুন আল মাহতাব (সপ্নীল)

হেপাটোলজি ( লিভার) ( Hepatology)

প্রফেসর ডা: এম.এ মাসুদ

গ্যাস্ট্রোএন্টেরোলজি ( খাদ্যনালী, পরিপাকতন্ত্র) ( Gastroenterology)

প্রফেসর ডা: মো: মোহসেন চৌধুরী

হেপাটোলজি ( লিভার) ( Hepatology)

প্রফেসর ডা:এম.এস. আরফিন

গ্যাস্ট্রোএন্টেরোলজি ( খাদ্যনালী, পরিপাকতন্ত্র) ( Gastroenterology)

প্রফেসর ডা: মো: হাসান মাসুদ

গ্যাস্ট্রোএন্টেরোলজি ( খাদ্যনালী, পরিপাকতন্ত্র) ( Gastroenterology)

প্রফেসর ডা: মোবিন খান

হেপাটোলজি ( লিভার) ( Hepatology)

প্রফেসর ডা: এম.এ মাসুদ

গ্যাস্ট্রোএন্টেরোলজি ( খাদ্যনালী, পরিপাকতন্ত্র) ( Gastroenterology)